চুল কাটতেও ‘বিরাট’ খরচ কোহলির! তার হেয়ারস্টাইলিস্টের কাঁচি চলে হার্দিক, শুভমনের মাথায়ও!

Photo of author

By S.G

বিরাট কোহলির সময় খুব ভালো যাচ্ছে। বিশ্বকাপের প্রায় প্রতিটি ম্যাচেই ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের কাছ থেকে রান আসছে। রবিবার ইডেনে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সেঞ্চুরি করেন বিরাট কোহলি। শচীন টেন্ডুলকার ওয়ানডে ক্রিকেটে তার 49তম সেঞ্চুরি করেছেন। ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, তিনি এখন ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা ফর্মে রয়েছেন।

রবিবারও ছিল বিরাটের জন্মদিন। এদিন ৪৯তম সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েন তিনি। আর তারপর থেকেই কোহলিকে নিয়ে তুমুল উত্তেজনা, সোশ্যাল মিডিয়া পেজে তিনিই।

তবে বিরাট শুধু বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান নয়, ‘স্টাইল আইকন’ হিসেবেও পরিচিত। তিনি বারবার চুল কাটা এবং দাড়ি পরিবর্তন করেছেন। এবং তাদের দেখে ভক্তদের চুলের ছাঁটও বদলে যায়।

কিন্তু জানেন কি চুল-দাড়ি-গোঁফের স্টাইল বদলাতে কোহলিকে কত টাকা খরচ করতে হয়?

ভারতে চুল কাটার সর্বনিম্ন খরচ কত? রাস্তার ধারে চুল কাটার দাম ৫০ টাকার কম। পাড়ার কোণায় দোকানে গেলে ১০০-২০০ টাকা খরচ করতে হয়। ভালো জায়গার দাম আরও বেশি। কিন্তু বিরাট যে টাকা খরচ করেন তা দিয়ে সহজেই একটা ভালো ফোন বা ল্যাপটপ কিনতে পারেন।

বিরাট সাধারণত দিল্লির অশোক বিহারে চুল ও দাড়ি কাটতে যান। কোহলি অশোক বিহারের ‘স্টুডিও 17’ নামে একটি বিখ্যাত সেলুনে চুল কাটতে যান।

বিরাট কোহলির চুল কাটেন ‘স্টুডিয়ো ১৭’-এর মালিক ও জনপ্রিয় কেশসজ্জা শিল্পী রশিদ সলমানি।

বিভিন্ন প্রতিবেদনে বলা হয়, রশিদ চুল স্পর্শ করার জন্য ১৮ হাজার টাকা নেন। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ৪০ হাজারের কাছাকাছি। গোঁফ ও দাড়ি কাটার খরচ আলাদা।

বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, বিরাটের চুল কাটতে ৮০ হাজার থেকে দেড় লাখ টাকা নেন রশিদ।

শুধু বিরাট নন, শুভমান গিল, হার্দিক পান্ড্য, সূর্যকুমার যাদবের মতো ভারতীয় ক্রিকেটারদেরও চুল কাটেন রশিদ।

তবে যে কেউ চাইলেই রশিদের কাছে গিয়ে চুল-দাড়ির ভোল বদলাতে পারবেন না। রশিদের কাছে চুল কাটাতে রীতিমতো অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিয়ে তবে যেতে হয় ।

রশিদের আদি বাড়ি বিহারে, যদিও তিনি বর্তমানে দিল্লিতে থাকেন। তিনি কেশসজ্জা নিয়েই পড়াশোনা করেছেন ।

ভারতীয় ক্রিকেটার ছাড়াও, তিনি ফাফ ডু প্লেসিস, ট্রেন্ট বোল্ট, রশিদ খান, টিম সাউদি, জেসন রয়ের মতো বিদেশী খেলোয়াড়দেরও কেশসজ্জা করেছেন।

Leave a Comment